যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘন্টায় রেকর্ড ১ হাজার ৪৯ জনের প্রাণহানী

মহামারি করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর মিছিল শুধু বাড়ছেই। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও। বুধবার (১ এপ্রিল) যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ১ হাজার ৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৫ হাজার ১শ ৫৩ জনে। দেশটিতে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা এখন ২ লাখ ১৭ হাজার ৬শ ৬১ জন। 

সফটওয়্যার সল্যুশন কোম্পানি ‘ডারাক্সে’র পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘ওয়ার্ল্ডোমিটারে’ প্রকাশিত তথ্যমতে, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৯ লাখ ৬৬ হাজার ৯০৩ জন। বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ২ লাখ ৩ হাজার ৫৩৫ জন।

 

মহামারীর বিপজ্জনক এইরূপ দেখে নভেল করোনা ভাইরাস মোকাবিলার নীতিমালায় পরিবর্তন আনার ইঙ্গিত দিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেব্রিয়াসুস। জেনিভায় এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ‘এটা এখনো আমাদের কাছে নতুন একটি ভাইরাস এবং আমরা শিখছি প্রতিনিয়ত। যেহেতু অবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে, নতুন তথ্য আসছে, তাতে আমাদের পরামর্শও বদলাবে।’ 

 

এদিকে, জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস ইতোমধ্যে বলেছেন, নভেল করোনা ভাইরাসের চলতি প্রাদুর্ভাব দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে বিশ্বের জন্য সবচেয়ে বড় পরীক্ষা হয়ে এসেছে। তিন মাস আগে চীনের উহানে প্রথম সংক্রমণ ঘটার পর ইউরোপকে বিপর্যস্ত করে এখন যুক্তরাষ্ট্র হয়ে উঠেছে করোনা ভাইরাস মহামারির নতুন কেন্দ্র।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, কোভিড-১৯ মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রে এক থেকে আড়াই লাখ মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কার কথা জানাচ্ছেন গবেষকরা। এই পরিস্থিতিতে দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলছেন, সামনে খুব কষ্টের সময় আসছে।

dv lottery

About Redoy

Check Also

করোনার টিকা পাবে শিশু-কিশোরেরাও

এখন থেকে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিতে পারবে শিশু-কিশোরেরাও। ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সীদের ফাইজারের টিকা প্রয়োগের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *